মোঃ ছিদ্দিক,ভোলা প্রতিনিধিঃ

দৌলতখানে আম্পানের প্রভাবে ঝড় ও গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে।গত রাত ১০টা থেকে শুরু হয়ে তা অব্যহত আছে। জেলার নদীগুলো ভয়ানক রূপ ধারণ করেছে।বুধবার ভোর থেকে জেলা জুড়ে ভয়ানক পরিস্থিতি বিরাজ করছে।অব্যহত রয়েছে প্রচন্ড গতিবেগ বাতাস। সেই সাথে আকাশ অন্ধকার।দৌলতখান উপজেলার ভবানীপুর ও মেঘনা নদীর পাড়ের অসংখ্য পরিবার এখন আশয় কেন্দ্রে ঠাঁই নে নি

সিপিপি’র লিডার মোঃ জামাল বলেন, সকাল থেকেই আবারও মাইকিং করে সবাইকে নিরাপদে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে আসার জন্য বলা হচ্ছে।

জেলার ভবানীপুরে আম্ফানের আতঙ্কে মানুষ

ঘূর্ণিঝড় সিডর, আইলা ও বুলবুলে জেলার সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ উপজেলা দৌলতখান ভবানীপুর। ইউনিয়নের জনগণের দুর্ভোগের শেষ নেই। নদীর তীরবর্তী এলাকার মানুষের ক্ষোভেরও অন্ত নেই।

এ ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ঘূর্ণিঝড় আইলা ও বুলবুল আঘাত হানে মেঘনায়। কোনো প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও মেঘনা নদীতে অতিরিক্ত পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ভেসে গেছে জেলেদের জাল ও নৌকা। তলিয়ে গেছে মাছের ঘের ও ছোট-বড় পুকুর। দৌলতখান উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের নদীর তীরে। এসব এলাকায় কিছু অংশে বেড়িবাঁধ থাকলেও তা সংস্কারের অভাবে ধসে পড়েছে। স্বাভাবিক জোয়ারের পানিও প্রবেশ করে। এছাড়া বেশিরভাগ অংশেই লোকজন চরম আতঙ্কে রয়েছেন।

 83 total views

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here